মাদারীপুরে নারী সাংবাদিক সাবরীন জেরিনের এর উপর হামলা

মাদারীপুর প্রতিনিধি(মোঃ রিফাত ইসলাম) : মাদারীপুরের নারী সাংবাদিক সাবরীন জেরিন(২৫) এর উপর হামলা চালিয়েছে এলজিইডি অফিসের কর্মচারী ও ঠিকাদাররা।

মঙ্গলবার (১০ মার্চ) সন্ধ্যায় মাদারীপুর এলজিইডি অফিসে এ ঘটনা ঘটে। তিনি দৈনিক আজকের বিজনেস বাংলাদেশ মাদারীপুর জেলা প্রতিনিধি ও স্টাফ রির্পোটার হিসেবে কর্মরত আছেন।

সন্ত্রাসী হামলায় গুরুতর আহত সাবরিন জেরিন মাদারীপুর সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ।

হামলার শিকার সাবরীন জেরিনের স্বামী আবদুল্লাহ আল মামুন বিজনেস বাংলাদেশ পত্রিকার ফরিদপুর ব্যুরো প্রধান ।

তিনি জানান, পত্রিকায় টেন্ডার বিজ্ঞাপন প্রকাশের জন্য মাদারীপুর এলজিইডি অফিসের ইউডি নাসির উদ্দীন মঙ্গলবার সন্ধ্যায় আমার স্ত্রীকে ফোন করে অফিসে ডাকেন। অফিসে যাওয়ার পর তিনি বিজ্ঞাপন না দিয়ে আমার স্ত্রীর সাথে খারাপ ব্যবহার, অকথ্য ভাষায় গালাগাল ও অশ্লীল আচরণ করেন। স্ত্রীর ফোন পেয়ে আমি এলজিইডি অফিসে গেলে নাসির উদ্দীনের নেতৃত্বে ১০/১৫ জন ঠিকাদার আমাকে মারপিট করে।

এ সময় আমার স্ত্রীর তলপেটে ৭/৮টি লাথি, কিলঘুষি, চড়থাপ্পড় ও চুল ধরে টানাহেঁচড়া করে।

এসময় ঘটনাস্থলেই আমার স্ত্রী বমি করে দেয় এবং বেধড়ক হামলার কারনে আমার স্ত্রী গুরুতর আহত হয়।

আবদুল্লাহ আল মামুন জানান, মারধরের সময় নাসির উদ্দীন বলেন ‘তুই কিসের সাংবাদিক তোদের মত কত সাংবাদিক আমার জীবনে মেরেছি। কেউ আমার কিছু করতে পারেনি। তুই যা পারিস তাই করিস’। এসময় আমাদের চিৎকারে আশপাশের লোকজন এসে আমাদের জীবন রক্ষা করে।

এ ঘটনায় মাদারীপুর সদর থানা ওসি কামরুল ইসলাম মিঞা জানান, এ ঘটনায় থানায় মামলা করেছেন আহত সাংবাদিক সাবরীন জেরিনের স্বামী আবদুল্লাহ আল মামুন। দোষীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির (ডিআরইউ) সাবেক যুগ্ম সম্পাদক সাংবাদিক মো. সাজ্জাদ হোসেন- সাবরিন জেরিনের উপর হামলার ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে বলেন, সাংবাদিকের উপর এ ধরনের সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা মুক্ত গণমাধ্যমের জন্য হুমকি সরূপ। তিনি এই ঘটনার সঙ্গে জড়িত সন্ত্রাসীদের অবিলম্বে গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান।

পোষ্টটি ভাল লাগলে শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *